2.5 C
London
March 4, 2024
TV3 BANGLA
দক্ষিণ এশিয়া

কে হতে যাচ্ছেন পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী?

পাকিস্তানে জাতীয় পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার তিন দিন পর সব আসনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। আজ রোববার দুপুরে সব কটি আসনের ফল ঘোষণা করা হয়। কোনো দলই একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারেনি।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২৬৪ আসনের মধ্যে ৯৭টিতে জিতেছে ইমরান খানের দল পিটিআই-সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) ৭৬টি আসনে জয় পেয়েছে।

৫৪টি আসনে জয় পেয়ে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির পাকিস্তান পিপলস পার্টি। মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্ট পাকিস্তান (এমকিউএম) ১৭ আসনে জয়ী হয়েছে।

পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের মোট আসনসংখ্যা ৩৩৬। এর মধ্যে ২৬৬ আসনে সরাসরি ভোট হয়। এ ছাড়া বাকি ৭০টি আসন সংরক্ষিত। এসব আসনের মধ্যে ৬০টি নারীদের ও ১০টি সংখ্যালঘুদের।

পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের ২৬৬ আসনের মধ্যে ২৬৫ আসনে ভোট হয়েছে। একটি আসনে ফল স্থগিত রাখার ঘোষণা দেয় নির্বাচন কমিশন। ফলে ২৬৪ আসনে ফল ঘোষণা করা হয়েছে। এককভাবে সরকার গঠনে ১৩৪টি আসন দরকার।

গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানে জাতীয় পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায় ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার প্রায় ১২ ঘণ্টা পর শুক্রবার ভোর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা শুরু করে ইসিপি।

আল জাজিরা জানিয়েছে, আদালতের নির্দেশে পাকিস্তানে ১০টি সংসদীয় আসনের ফলাফল স্থগিত করা হয়েছে। মূলত আদালতের জারি করা স্থগিতাদেশের পর জাতীয় পরিষদের ১০টি এবং প্রাদেশিক পরিষদের ১৬টি আসনের ফলাফল স্থগিত রেখেছে পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন।

এদিকে জাতিসংঘের মানবাধিকার অফিস রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার নিন্দা জানিয়েছে। ইমরান খানের দলের নেতা ও সমর্থকদের হয়রানি, গ্রেপ্তার এবং দীর্ঘদিন আটক রাখা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সংস্থাটি।

ইইউ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন বলেছে, তারা পরবর্তী সরকারের সঙ্গে কাজ করবে। তারা কোনো প্রার্থী বা দলকেই এখনো অভিনন্দন জানায়নি।

সূত্রঃ আল জাজিরা

এম.কে
১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

 

আরো পড়ুন

রামমন্দিরের উদ্বোধনকে ঘিরে মুসলিমদের ঘরে থাকার আহ্বান

পাকিস্তানকে সবচেয়ে বিপদজনক দেশ বলায় মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব

অবশেষে চ্যাটজিপিটি হেরে গেল ভারতে