11 C
London
July 15, 2024
TV3 BANGLA
বাংলাদেশ

খাদ্য ও সুপেয় পানির সংকটে সেন্টমার্টিনবাসী

টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে ট্রলার চলাচল বন্ধ থাকায় দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। টেকনাফ থেকে কোনো নৌযান সেন্টমার্টিনে যেতে পারছে না। সেখান থেকে আসতেও পারছে না। নৌযান দেখলেই মিয়ানমার থেকে ছুটে আসে গুলি। গত সাত দিন ধরে চলছে এই পরিস্থিতি। পরপর তিন দফা গুলির ঘটনার পর সেন্টমার্টিনের খাদ্য ও সুপেয় পানির তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। এতে অনেকটা বন্দীদশায় চরম ভোগান্তিতে দিন পার করছেন দ্বীপটির প্রায় ১০ হাজার বাসিন্দা।

চলমান সমস্যা সমাধানে আজ বুধবার থেকে দ্বীপটিতে বিকল্প পথে খাদ্যদ্রব্য পাঠানোর পরিকল্পনা করছে জেলা প্রশাসন। কিন্তু কবে নাগাদ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে কিংবা সকল ধরনের নৌ চলাচল শুরু হবে তা জানে না কেউ।

জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন ও দ্বীপবাসীর কাছ থেকে পাওয়া তথ্য মতে, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের ভেতরে সংঘাত চলছে। এর মধ্যে দেশটির সীমান্ত থেকে বাংলাদেশের দিকেও গুলি ছোড়া হচ্ছে। গত ৫ জুন সেন্টমার্টিন থেকে ফেরার সময় নির্বাচনী সরঞ্জাম ও কর্মকর্তাদের বহনকারী ট্রলারে মিয়ানমার থেকে গুলি ছোড়া হয়। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ট্রলার। পরদিন নাফ নদীর বদরমোকাম মোহনায় নাইক্ষ্যংদিয়া নামক এলাকায় পণ্যবাহী ট্রলারে গুলির ঘটনা ঘটে। এতে কেউ হতাহত না হলেও ট্রলারটিতে সাতটি গুলি লাগে। এরপর থেকে ভয়ে সব নৌযান বন্ধ রাখা হয়েছে। এতে সেন্টমার্টিনে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসহ খাদ্য সংকটের শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনে প্রায় ১০ হাজার মানুষের বসবাস। তাদের যোগাযোগসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সরবরাহের একমাত্র মাধ্যম নৌযান। দ্বীপের বাসিন্দারা বলছেন, ‘নৌযান বন্ধ থাকায় গতে এক সপ্তাহ ধরে টেকনাফের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে সেন্টমার্টিনের। খাদ্য ও পণ্যবাহী বোট চলাচল না করায় সেন্টমার্টিনের দোকানগুলোতে মজুত খাদ্যপণ্য শেষ হতে চলেছে। ইতোমধ্যেই পণ্যের অভাবে প্রায় ৬০ শতাংশ দোকানপাট বন্ধ রাখা হয়েছে।’

এম.কে
১৪ জুন ২০২৪

আরো পড়ুন

ইসরায়েল থেকে বিমান এল ঢাকায়, জন্ম দিয়েছে আলোচনার

মালদ্বীপে বাংলাদেশিদের কর্মী ভিসা দেওয়া বন্ধ

বাংলাদেশে বিদ্যুৎ সংকট, বাড়ছে সৌর পাম্পের কৃষি সেচ