11.1 C
London
July 15, 2024
TV3 BANGLA
যুক্তরাজ্য (UK)

ধর্মের চাদর লাগিয়ে নির্বাচনী বৈতরণি পার করতে চান ঋষি সুনাক

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক নির্বাচনী প্রচারণা ও সাফল্যের জন্য হিন্দুত্ববাদ ও হিন্দু বিশ্বাসকে গুরুত্ব দিয়েছেন।

ঋষি সুনাক হিন্দুত্ববাদ মতামত প্রকাশ করে বলেন, সাধারণ নির্বাচনে জয়লাভ করতে ও প্রচারণার সময় শক্তি পেতে ধর্মের মন্ত্র ব্যবহার করবেন তিনি। তার মতে ‘ধর্ম’ হিন্দু ধর্মের একটি গুরুত্বপূর্ণ শব্দ এবং এর অর্থ ‘কর্তব্য’, ‘পুণ্য’, ‘নৈতিকতা’ এবং এটি মহাবিশ্ব ও সমাজকে সমর্থন করে যথাযথ শক্তি প্রদান করে।

মিঃ সুনাক, ২০২২ সালে যুক্তরাজ্যের দায়িত্ব নেওয়ার সময় ব্রিটেনের প্রথম অশেতাঙ্গ এবং হিন্দু নেতা হয়েছিলেন। যুক্তরাজ্যের ইতিহাসে এটাই এইরকম প্রথম ঘটনা। পারিবারিক উপাসনার জন্য তার দশ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে একটি মন্দির রয়েছে এবং তিনি তার ডেস্কে হিন্দু দেবতা গণেশের মূর্তি রাখেন।

প্রধানমন্ত্রী তার হিন্দু বিশ্বাস কীভাবে তাকে ‘শক্তি এবং স্থিতিস্থাপকতা’ দেয় সে সম্পর্কে কথা বলেছেন। তিনি জানান রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে তার মেয়েরা প্রার্থনায় তার পরিবারের সাথে যোগ দেয়। ধর্ম তাদের এই নিয়মশৃঙ্খলা শিক্ষা দেয়।

মিঃ সুনাক ২০২২ সালে জানিয়েছিলেন, ‘বিভিন্ন কারণে ধর্ম আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমার জন্য, ধর্ম অবশ্যই জীবনের উদ্দেশ্য এবং সফলতা বয়ে আনতে সহায়তা করে।

উল্লেখ্য যে, যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী হিসাবে ঋষি সুনাক প্রথম ব্যক্তি যিনি ধর্মকে সামনে নিয়ে এসেছেন রাজনীতির সাথে। যুক্তরাজ্যের ইতিহাস কিংবা ঐতিহ্যের সাথে যা মোটেও খাপ খায় না বলে মনে করেন সমালোচকেরা। সাধারণ নির্বাচনের বৈতরণি পার হতে ধর্মের ব্যবহার সুনাককে তেমন সাহায্য করবে না বরং হিতে বিপরীত হতে পারে বলে মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা।

সূত্রঃ ডেইলি মেইল

এম.কে
২২ জুন ২০২৪

আরো পড়ুন

কানাডায় স্থায়ী হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন ৯০ হাজার বিদেশি

রানির কাছে ক্ষমা চাইলো ডাউনিং স্ট্রিট

অনলাইন ডেস্ক

লন্ডনে আবাসন সংকট নিয়ে সরকার,মেয়র মুখোমুখি