1. robin.nasif@live.com : নিউজ ডেস্ক :
  2. farjulcreative@gmail.com : নিউজ ডেস্ক : Farjul Islam
  3. mh2mukul@gmail.com : নিউজ ডেস্ক : M Moinul Hossain
  4. nh.tiash@gmail.com : Nawshad Tiash : Nawshad Tiash
বাংলাদেশকে ‘রেডলিস্ট’ থেকে বাদ দিতে ব্রিটিশ-বাংলাদেশি এমপিদের আলোচনার আহ্বান TV3 BANGLA
বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৩:১৭ অপরাহ্ন

বাংলাদেশকে ‘রেডলিস্ট’ থেকে বাদ দিতে ব্রিটিশ-বাংলাদেশি এমপিদের আলোচনার আহ্বান

নিউজ ডেস্ক
  • বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৫৬৫

ব্রিটেনের আন্তর্জাতিক ভ্রমণ বিধিনিষেধের ‘রেডলিস্ট’ থেকে বেরিয়ে ভারত ইতোমধ্যে হলুদ তালিকায় চলে গেছে। ভারতকে হলুদ তালিকায় নিয়ে আসা হলে পাকিস্তান পার্লামেন্টে ঝড় বয়ে যায়, পাকিস্তানকেও হলুদ তালিকায় আনার বিষয়ে লন্ডনে পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপিরা পার্লামেন্টে কথা বলেছেন। একারণে পাকিস্তানের নাম লাল তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে সংবাদ হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশের নাম নিয়ে কোনো আশার সংবাদ নেই।

 

তাই বাংলাদেশের নাম ‘রেডলিস্ট’ থেকে বাদ দিতে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপিদের পার্লামেন্টে আলোচনা করার আহ্বান জানিয়েছে ট্রাভেল ব্যবসায়ীরা। এদিকে বাংলাদেশ লাল তালিকায় থাকায় বর্তমানে বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতির শিকার ট্রাভেল এজেন্ট ও কোম্পানিগুলো। ব্রিটেনে পরিচালিত বাংলাদেশকেন্দ্রিক ট্রাভেলস ব্যবসায় প্রায় ৫০ মিলিয়ন পাউন্ড আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে বলে জানা যায়।

 

ব্রিটেনের অন্যতম শীর্ষ বাংলাদেশি মালিকানাধীন ট্রাভেল এজেন্ট ট্রাভেল লিংকের কর্ণধার সামি মানাউল্লাহ বলেন, বাংলাদেশকে ঘিরে ব্রিটিশ বাংলাদেশি ট্রাভেল এজেন্টদের বছরে ৬০ মিলিয়ন পাউন্ডের ব্যবসা ছিল। সেটা এখন নেমে এসেছে ১০ শতাংশের নিচে! এমনকি ট্রাভেল ইন্ডাস্ট্রি ঘিরে টিকিট ছাড়াও আরও যে আনুষঙ্গিক ব্যবসা-বাণিজ্য তা ১০০ মিলিয়নের ওপরে হবে, সেটাও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মারাত্মক!

 

তিনি মনে করেন, এ বিষয়ে বাংলাদেশ সরকার ও এখানে যারা ব্রিটিশ বাংলাদেশি জনপ্রতিনিধি আছেন তাদের কথা বলা প্রয়োজন।

 

একইভাবে লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি ইমদাদুল হক বলেন, এ বিষয়টি নিয়ে আপসানা বেগম এমপি একবার কথা বলেছিলেন অনেক আগে, তারপরও আমাদের যেহেতু আরও ৩ জন ব্রিটিশ বাংলাদেশি এমপি রয়েছেন যারা আসলে অনেক অভিজ্ঞ ও প্রভাবশালী, তাদের উচিত এটি নিয়ে কথা বলা।

 

বাংলাদেশ রেডজোনে থাকার কারণে বর্তমানে লন্ডন থেকে বাংলাদেশ বিমানের সপ্তাহে একটি ফ্লাইট পরিচালিত হয়, যা আগে ছিল সপ্তাহে চারটি। গত সপ্তাহে ছেড়ে যাওয়া বিমানের ২৮০ আসনের ফ্লাইটে যাত্রী ছিলেন মাত্র ৭৬ জন। এদিকে লন্ডনে ফিরে হোটেল কোয়ারেন্টাইনের ১০ দিনের জন্য একজন যাত্রীকে দিতে হচ্ছে ২২৮৫ পাউন্ড। কোয়ারেন্টাইনে নিম্নমানের খাবার, অপরিষ্কার রুমসহ বিভিন্ন সার্ভিস নিয়ে অসন্তোষ রয়েছে মানুষের মনে।

 

লন্ডনে সফররত বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন গত বৃহস্পতিবার। বাংলাদেশকে লাল তালিকা থেকে বের করার ব্যাপারে তাদের কথা হয়েছে বলে জানা গেছে।

 

২ সেপ্টেম্বর ২০২১
সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

Leave a Reply

আরও পড়ুন...

ফেসবুকে আমরা…

আর্কাইভ