18.5 C
London
July 23, 2024
TV3 BANGLA
বাংলাদেশসারাদেশ

‘সাউথ এশিয়ান্স ফর বাইডেন’ এর জ্যেষ্ঠ পরামর্শক ওসমান সিদ্দিক

নব নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক সিনিয়র উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন ড. ওসমান সিদ্দিক।

বিডিনিউজে গত আগস্টে প্রকাশিত সংবাদ সূত্রে জানা যায়, এবারের মার্কিন নির্বাচনে ডেমক্র্যাটিক পার্টির সমর্থনে দক্ষিণ এশিয়ানদের মোর্চা ‘সাউথ এশিয়ান্স ফর বাইডেন’ এর  সিনিয়র উপদেষ্টা হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করেন এই বাংলাদেশি।

বলা হচ্ছে, মার্কিন রাজনীতির গুরুত্বপূর্ণ পদে তিনিই প্রথম বাংলাদেশি।

জানা যায়, ড. এম ওসমান সিদ্দিকীর পৈতৃক নিবাস কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার গুজাদিয়া গ্রামে। তিনি বাংলাদেশের সাবেক শিক্ষামন্ত্রী ড. ওসমান ফারুকের ছোট ভাই। তার বাবা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও বিজ্ঞানী ড. মুহাম্মদ ওসমান গনি।

বাইডেনের রানিংমেট ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে কমলা হ্যারিস মনোনয়ন পাবার পরই মার্কিন রাজনীতিতে দক্ষিণ এশিয়ানদের গুরুত্ব অবধারিত হয়ে উঠেছে। সেই আলোকে বাইডেন-কমলাকে বিপুল বিজয় দিতে দক্ষিণ এশিয়ানরা পৃথক একটি প্ল্যাটফরম থেকে কাজের সংকল্প নিয়েছে। এর আগে কখনোই এমনটি ঘটেনি। প্রসঙ্গত:

ভারত, বাংলাদেশ, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, নেপাল, আফগানিস্তান, মালদ্বীপ এবং ভুটানের প্রায় ৮ মিলিয়ন অভিবাসী রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে। এরসঙ্গে যোগ হয়েছে এসব পরিবারে জন্মগ্রহণকারী যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকরা।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আইটি, চিকিৎসা, শিক্ষকতায় ভারতীয়রা দ্বিতীয় শীর্ষে অবস্থান করলেও বাংলাদেশিরাও পিছিয়ে নেই। এসব কারণে প্রশাসন এবং রাজনীতিতেও দক্ষিণ এশিয়ানদের এখন আর খাটো করে দেখার অবকাশ নেই বলেও মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক এবং সমাজবিজ্ঞানীরা। এরই আলোকে ‘সাউথ এশিয়ান্স ফর বাইডেন’ এর আবির্ভাব ঘটে।

এই নির্বাচনে বাইডেন ও কমলার টিমের বিশেষ সহযোগী হিসেবে দক্ষিণ এশিয়ানদের এই মোর্চা তহবিল সংগ্রহের পাশাপাশি ভোটার হিসেবে তালিকাভুক্তি এবং ভোট দেওয়ায় সবাইকে উৎসাহিত করার সাংগঠনিক তৎপরতা চালিয়েছে বলে জানায় যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গণমাধ্যমগুলো।

ওসমান সিদ্দিক উচ্চ শিক্ষার জন্যে সত্তর সালের আগে যুক্তরাষ্ট্রে আসেন। শিক্ষা শেষে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে ব্যবসা শুরু করেন এবং সেই সূত্রে সিটিজেনশিপও পান। তারপরই মার্কিন রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন। প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন তাকে ফিজিসহ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত নিয়োগ করেছিলেন। তারও আগে প্রেসিডেন্সিয়াল ডেলিগেশন হিসেবে মার্কিন প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন কিশোরগঞ্জের সন্তান ওসমান সিদ্দিক।

ড. সিদ্দিক হলেন প্রথম মার্কিন নাগরিক যিনি জন্মগত দক্ষিণ এশিয়ান মুসলিম এবং বিদেশে রাষ্ট্রদূত ও বিভিন্ন মিশনের প্রধান হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিত্ব করার জন্য নিযুক্ত হন।

বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক ইন্সটিটিউটের ‘আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক’ হিসেবেও একবার দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। পাশাপাশি প্রেসিডেন্ট ক্লিনটনের ঢাকা সফরের সময়েও সাথে ছিলেন ওসমান সিদ্দিক।

১১ নভেম্বর ২০২০
এনএইচ

আরো পড়ুন

নতুন কাজ নেই, সংকটে পোশাকখাত

সিলেটবাসীর নতুন ভোগান্তি লোডশেডিং

বাংলাদেশি পাসপোর্টে ভিসা ছাড়াই ৪০ দেশে