4.6 C
London
April 17, 2024
TV3 BANGLA
যুক্তরাজ্য (UK)শীর্ষ খবর

যুক্তরাজ্যে ঘোষণা হতে যাচ্ছে নতুন বাজেট

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ট্যাক্স ও এনআই কর্তণ করে এবং বৃহৎ তহবিল ঋণ নিয়ে নতুন বাজেট পরিকল্পনা ঘোষণা করতে যাচ্ছেন যুক্তরাজ্যের অর্থমন্ত্রী জেরেমি হান্ট।

তিনি বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাসের আমলে যুক্তরাজ্যের আর্থিক খাতের উপর যে আস্থাহীনতা তৈরি হয়েছে তা থেকে বেরিয়ে আসতে এখন পদক্ষেপ নেয়া জরুরি।

বাজেট পরিকল্পনা ঘোষণার আগে হান্ট স্বীকার করে নেন, যুক্তরাজ্যের অর্থনীতিতে এরইমধ্যে মন্দাভাব দেখা দিয়েছে এবং আগামী বছর অর্থনীতি আরো সংকুচিত হবে বলেও আভাস পাওয়া গিয়েছে। যুক্তরাজ্যের আর্থিক বাজারের স্থিতিশীলতা পুনরুদ্ধারে কাজ করে যাবে যুক্তরাজ্য সরকার বলে ঘোষণা দেন তিনি।

একজন শীর্ষস্থানীয় অর্থনীতিবিদ জানিয়েছেন, জেরেমি হান্ট ব্রিটেনের অর্থনীতিতে প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধির জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নীতিমালা অনুকরণ করার সম্ভাবনা রয়েছে।

পানমুরে গর্ডনের প্রধান অর্থনীতিবিদ সাইমন ফ্রেঞ্চ বলেন, ট্যাক্স কর্তনের ফলে যে ফান্ড ঘাটতি হবে তা মোকাবেলার জন্য ঋণ তহবিলের দিকে ঝুঁকবেন জেরেমি হান্ট। তবে এই ধরনের ঋণ তহবিলের দিকে ঝোঁকার কারণে লিজ ট্রাস সরকারের পতন ঘটেছিল বলে সতর্ক করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, যুক্তরাজ্য সরকার মার্কিন অর্থনীতির বৃদ্ধি দেখে চমকিত হতে পারে তবে সেই পথ বিপদসংকুল।
যুক্তরাজ্যের ব্যবসায়ীরা অপেক্ষা করছেন জেরেমি হান্টের ম্যাজিকের জন্য। কেমন খরগোশ তিনি তার টুপি হতে বের করে আনেন তা জানার সকল ট্রেডিং ব্যবসায়ীরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষমাণ।

মিঃ ফ্রেঞ্চ স্কাই নিউজকে বলেছেন, “ বিশ্বব্যাপী অর্থনীতি বর্তমানে যে সমস্যা মোকাবেলা করছে তার মাঝে যুক্তরাষ্ট্র অন্যতম যারা বিশ্বের বৃহত্তম অর্থনীতি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ফান্ড বা তহবিল ঋণের দিকে ঝুঁকেছে। যাতে অর্থনীতির বাস্তব পরিস্থিতি আঁচ করা যায় না। তবে বাইরে থেকে মনে হয় এটি বাড়ছে খুব দ্রুত হারে। এই বৃদ্ধির পরিসংখ্যান৷ দেখে চমকিত হবার কিছু নেই। গত কয়েক বছর ধরে মার্কিন অর্থনীতির সাফল্যকে একটি জুয়া হিসাবে মূল্যায়ন করা যায় মাত্র।”

সূত্রঃ দ্য টেলিগ্রাফ

এম.কে
০৬ মার্চ ২০২৪

আরো পড়ুন

যুক্তরাজ্য সরকার আশ্রয়প্রার্থীদের জন্য হাতে নিতে যাচ্ছে তাঁবু ব্যবস্থাপনা

যুক্তরাজ্য ও ইউরোপে ‘বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপ’ সরাসরি সম্প্রচারে টিভি ওয়ান

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্য দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য বাড়াতে সম্মত