1. robin.nasif@live.com : নিউজ ডেস্ক :
  2. farjulcreative@gmail.com : নিউজ ডেস্ক : Farjul Islam
  3. mh2mukul@gmail.com : নিউজ ডেস্ক : M Moinul Hossain
  4. nh.tiash@gmail.com : Nawshad Tiash : Nawshad Tiash
যৌন হয়রানির শাস্তিস্বরূপ অর্থদণ্ড দিতে অক্ষম প্রাক্তন টরি এমপি TV3 BANGLA
রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৫৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ খবর
যুক্তরাজ্যের আবহাওয়ার পূর্বাভাস: এ মাসের শেষে ভারী তুষারপাতের আশংকা ব্রিটেনের ইতিহাসের প্রথম মুসলিম মন্ত্রী বর্ণবাদের শিকার অ্যাসাইলামপ্রার্থীদের অধিকার রক্ষায় ইইউ-এর নতুন দপ্তর মর্টগেজ ভ্যালুয়েশন কি এবং এটি কিভাবে কাজ করে? যুক্তরাষ্ট্রে বেপরোয়া গুলির আঘাতে নিহত ব্রিটিশ বিজ্ঞানী উইল না থাকলে অপুত্রক বাবার সম্পত্তির উত্তরাধিকারী মেয়ে: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট মাঝ সাগরে নৌকাতে সন্তান জন্ম দিলেন অভিবাসী মা বছরে ৪ লাখ বিদেশি শ্রমিক নেবে জার্মানি জোকোভিচের মালিকানায় তৈরি হচ্ছে কোভিডের ওষুধ অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্স এখন বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর অন্যতম কারণ

যৌন হয়রানির শাস্তিস্বরূপ অর্থদণ্ড দিতে অক্ষম প্রাক্তন টরি এমপি

নওশাদ
  • শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৭৫

আবারো সমালোচনায় প্রাক্তন কনজারভেটিভ এমপি চার্লি এলফিক। সম্প্রতি তিনি বলেছেন, খুব কঠিন ও বিব্রতকর অবস্থায় আছেন অর্থনৈতিকভাবে, তাই তার যৌন হয়রানির শাস্তিস্বরূপ আদালত নির্ধারিত ৩৫ হাজার পাউন্ড অর্থদণ্ড দিতে অক্ষম।

 

এলফিককে গত জুলাইতে তিনটি অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছিল। এরমধ্যে দুটি ২০১৬ সালে একজন সংসদকর্মীর ওপর, এবং একটি ২০০৭ সালে তার পরিবারের সেন্ট্রাল লন্ডনের বাড়িতে একজন নারীর ওপর যৌন হয়রানির অভিযোগে।

 

এলফিক ২০১০ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত ডোভারের কেন্ট নির্বাচনী এলাকার প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। এই বছরের শুরুর দিকে তার সাজার অর্ধেক মওকুফ পেয়েছিলেন। ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে দুই বছরের জন্য জেল হয় তার, যা অর্ধেকে কমিয়ে আনা হয় ৩৫ হাজার পাউন্ড অর্থদণ্ডের বিনিময়ে।

 

কিন্তু প্রাক্তন সরকারি হুইপ, যিনি পরের বছর পর্যন্ত লাইসেন্সে রয়েছেন, তাকে অর্থ প্রদান না করার জন্য শুক্রবার উক্সব্রিজ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উপস্থিত হওয়ার জন্য তলব করেন।

 

“আমি নিজেকে খুব কঠিন এবং বিব্রতকর অবস্থায় দেখতে পাচ্ছি,” তিনি আদালতকে বলেন, “আমাকে আমার সাজা শেষ করে স্বচ্ছল অবস্থায় ফিরে আসতে সময় দিন”।

 

জানা যায় তার বৈবাহিক বাড়ির বিক্রয় থেকে প্রাপ্ত ৫১ হাজার পাউন্ডের বেশিরভাগই আইনি ফি এবং দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনের ফুলহামে এক বেডরুমের ফ্ল্যাটের জন্য ছয় মাসের ভাড়া দেওয়ার জন্য ব্যবহার করা হয়েছে।

 

তিনি আদালতকে বলেছিলেন যে তিনি তার আর্থিক পরিস্থিতি মূল্যায়ন করার জন্য স্টেপ চেঞ্জ ডেট দাতব্য সংস্থার সাথে কাজ করেছেন কিন্তু একটি পরিশোধের প্রস্তাব আদালত গ্রহণ করেনি।

 

“আমার কোনো চাকরি নেই, আমার কোন পেশা নেই, আমি দীর্ঘমেয়াদী বেকার,” বলেছেন এলফিক। “আমি একটি নতুন কর্মজীবন খোঁজার জন্য জব সেন্টার এবং আমার প্রবেশন অফিসারের সাথে কাজ করছি। আমি ইউনিভার্সাল ক্রেডিট জন্য একটি আবেদন করেছি. আমি আমার স্ত্রী থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছি যে বিবাহবিচ্ছেদের জন্য আবেদন করেছে। আমাকে থাকার জন্য একটি নতুন জায়গা খুঁজে বের করতে হয়েছে।”

 

৩ ডিসেম্বর ২০২১
এনএইচ

Leave a Reply

আরও পড়ুন...

ফেসবুকে আমরা…

আর্কাইভ