4.6 C
London
April 17, 2024
TV3 BANGLA
সিলেট

সিলেটে মাত্র দুইজন বলতে পারেন যে ভাষা!

ভাষার নাম “খাড়িয়া”। বর্তমানে, এই ভাষা জানা কেবল দুই ব্যক্তি বেঁচে আছেন বাংলাদেশের সিলেট বিভাগে। সম্পর্কে তারা দুই বোন, বয়স ৭০ এর বেশি।

এই দুই বোন মারা গেলে দেশ থেকে “খাড়িয়া” নামক ভাষাটিরও মৃত্যু ঘটবে। একটি ভাষা এবং একটি সংস্কৃতি পৃথিবীর হৃদয় থেকে মুছে যাবে।

জানা যায়, এ ভাষা জানেন এমন দুইজনের বাস করেন সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার ফিনলে টি কোম্পানির বর্মাছড়া চা বাগানের বস্তিতে।

ভেরোনিকা কেরকেটা ও খ্রিস্টিনা কেরকেটা নামে ওই দুই বোন “খাড়িয়া” ভাষা পুরোপুরি জানেন। এজন্য দুই বোন এ ভাষায় কথা বললেও আর কোনো সঙ্গী নেই তাদের।

সংবাদ সংস্থা বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার ৩৫টি গ্রামে খাড়িয়াদের বসবাস। বাংলাদেশে অনেক খাড়িয়া জাতি আছে কিন্তু এই ভাষা পাওয়া যাবে না। অনেক মানুষ আছে কিন্তু এই ভাষায় কথা বলতে পারবেন না। তাদের বাবা-মা এই ভাষা জানে না, তাই সন্তানরাও জানে না।

দেশ থেকে ভাষাটি হারিয়ে যাওয়ার কারণ হিসেবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কিংবা পাঠ্যপুস্তকে এর ব্যবহার না থাকাকেই দায়ী করছিলেন এই ভাষা জানা ভেরেনিকা কেরকেটা।

তিনি বলেন, ‘বাচ্চারা স্কুলে যায়, বাংলা ভাষায় পড়ালেখা করে। বাংলায় কথা বলে, বাংলা ভাষা ভালোবাসে। ঘোরেফেরে বাংলায় কথা বলে। খাড়িয়া ভাষায় বইপত্র থাকলে, টিভিতে প্রচার থাকলে এই ভাষা সবাই জানতো’

তিনি বলেন, “পরিবারের মধ্যেও কেউ এই ভাষায় কথা বলতে পারেন না। অনেকে এ ভাষাকে উড়িয়া বা চা বাগানের ভাষার সঙ্গে মিলিয়ে ফেলেন। আমাদের তাই কথা বলতে হয় বাংলা ভাষায়। ইচ্ছে তো করে নিজের ভাষায় প্রাণ খুলে কথা বলি।”

তিনি আরও বলেন, “গ্রামে আমার ছোট বোন ছাড়া কেউ এই ভাষা পারে না। তাই তার সঙ্গে দেখা না হলে এই ভাষা বলার সুযোগ নেই। আমাদের ছেলে-মেয়েদের বা নাতি-নাতনিদের এই ভাষায় কথা বললে তারা হাসাহাসি করে, ঠাট্টা করে। আমি নিজেও প্রায় অসুস্থ থাকি। তাই বোনের সঙ্গে দেখাও হয় না, কথাও হয় না।”

ভেরোনিকা আফসোস করে বলেন, “আমরা বলতে পারলেও লিখতে পারি না। খাড়িয়া সমাজে মাত্র ১৫-২০ জন হবে, যারা খাড়িয়া ভাষার কয়েকটা মাত্র শব্দ জানে। খাড়িয়া ভাষার পাঠ্যবই এবং ব্যাকরণ আছে ভারতে। আমাদের জাতি আছে ভারতে। তাদের সঙ্গে কথা বলতে পারি না। দেখাও করতে পারি না। আমাদের পাসপোর্ট নাই, টাকাও নাই তাই করতে পারি না।”

বাংলাদেশ থেকে বিপন্নপ্রায় ভাষাটি সংরক্ষণের দাবি খাড়িয়া জনগোষ্ঠীর।

সূত্রঃ বিবিসি

এম.কে
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

আরো পড়ুন

সিলেটে পরিবহন মালিক-শ্রমিকের চাপে বন্ধ বিআরটিসি বাস সার্ভিস

অনলাইন ডেস্ক

বিবিসিতে করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে সিলেটি ভাষায় প্রশ্নোত্তর

নিউজ ডেস্ক

সিলেট মেয়র ইলেকশন আটকে আছে ‘আরিফে’