1. robin.nasif@live.com : নিউজ ডেস্ক :
  2. sanjanafariha@gmail.com : Fariha : Sanjana Fariha
  3. farjulcreative@gmail.com : নিউজ ডেস্ক : Farjul Islam
  4. mh2mukul@gmail.com : নিউজ ডেস্ক : M Moinul Hossain
  5. nh.tiash@gmail.com : Nawshad Tiash : Nawshad Tiash
হাসপাতালের বেড বাসায় নেওয়ার সময় জনতার হাতে আটক চিকিৎসক TV3 BANGLA
শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ০৩:২৫ পূর্বাহ্ন

হাসপাতালের বেড বাসায় নেওয়ার সময় জনতার হাতে আটক চিকিৎসক

নিউজ ডেস্ক
  • বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১
  • ৩০০
ঘটনাস্থলের দৃশ্য। সন্দেহ হওয়ায় পথেই বেডটি বহন করা ভ্যানটি আটকে দেয় এলাকাবাসী। ছবি: সংগৃহীত

রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের রোগীদের বেড বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার সময় এক চিকিৎসককে আটক করেছে এলাকাবাসী।

 

বুধবার (১৬ জুন) দুপুর নগরীর বুড়িরহাট রোড ডক্টরস ক্লিনিকের সামনে ভ্যানে করে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা বেডটি আটক করে। এ সময় স্থানীয়দের সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন অভিযুক্ত চিকিৎসক।

 

তবে অভিযুক্তের বক্তব্য, অসুস্থ মায়ের চিকিৎসা করাতেই তিনি স্টোর কিপারকে চিঠি দিয়েই বেডটি নিয়ে যাচ্ছিলেন।

 

অভিযুক্ত ওই চিকিৎসক রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের হেমাটোলজি বিভাগের মেডিক্যাল অফিসার। পাঁচ বছর ধরে হাসপাতালটিতে চাকরি করছেন। গ্রামের বাড়ি রংপুরের পীরগঞ্জে।

 

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী জানান, আজ দুপুরে ভ্যানে করে হাসপাতালের রোগীদের ব্যবহৃত একটি বেড নিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসীর সন্দেহ হয়। তারা ভ্যানটিকে আটক করে। এ সময় ডা. শাহীনুর রহমান স্বীকার করেন, এটি তিনি রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে বাসায় নিয়ে যাচ্ছেন। অনুমতিপত্র বা কোনও বৈধ কাগজপত্র আছে কি-না জানতে চাইলে চিকিৎসকের সঙ্গে এলাকাবাসীর বাগবিতণ্ডা হয়।

 

অভিযুক্ত চিকিৎসক শাহীনুর রহমান সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, আমার মা দেড় মাস ধরে হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের কেবিনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বর্তমানে করোনা প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় এবং এতোদিনে মেডিক্যালে রাখাটা ব্যায়সাধ্য হওয়ায় কিছুদিনের মধ্যে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়িতে নেওয়ার কথা চলছিল। তাই তিনি যাতে হেলান দিয়ে শুয়ে থাকতে পারেন এ জন্যই মেডিক্যালের বেডটি নিয়ে যাচ্ছিলাম

 

তিনি বলেন, হাসপাতালের সম্পদ নষ্ট হোক, এমনটা কখনো করিনি। শুধু মানবিক দিক থেকে নিজের মায়ের থাকার সুবিধার কথা চিন্তা করে স্টোরকিপার ও ৩০ নম্বর ওয়ার্ড ইনচার্জ চিঠি দিয়ে বেডটি নিয়ে যাচ্ছিলাম। তবে এভাবে নেওয়ার কোনো নিয়ম নেই স্বীকার করে এ ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।

 

এ বিষয়ে হাসপাতালের পরিচালক ডা. রেজাউল করিম বলেন, ওই চিকিৎসক তার মায়ের জন্য স্টোরকিপার ও ওয়ার্ড ইনচার্জকে চিঠি দিয়ে পুরাতন বেড বাড়িতে নিয়ে যাচ্ছিলেন। এটি নেওয়ার কোনো নিয়ম নাই। আগে আমি বিষয়টি জানতাম না। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। তিনি ক্ষমা চেয়েছেন।

 

১৬ জুন ২০২১
সূত্র: বাংলাট্রিবিউন

Leave a Reply

আরও পড়ুন...

ফেসবুকে আমরা…

আর্কাইভ