14 C
London
June 23, 2024
TV3 BANGLA
যুক্তরাজ্য (UK)

হোম অফিসের অমানবিক সিদ্ধান্তে বিপাকে ইউক্রেনীয় যুবতী

হোম অফিস ইউক্রেনীয় এক মহিলাকে ইউকে ত্যাগ করার জন্য নোটিশ জারি করেছে। তারা ইউক্রেনীয় মহিলার উপর ভিসা নিয়ে করা কিছু জালিয়াতির অভিযোগ এনেছে।

আনাস্তাসিয়া ড্রেভিনিটস্কা নামের ইউক্রেনীয় যুবতী বর্তমানে যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন। যার বাবা -মাও যুক্তরাজ্যে বর্তমানে অবস্থান করছেন। ইউক্রেনীয় যুবতীকে হোম অফিস কর্তৃক জানানো হয় তিনি যুক্তরাজ্যের ইউক্রেন স্কিমের মানদণ্ডের জন্য যোগ্য নন। যার কারণে আনাস্তাসিয়াকে যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে ফিরে যেতে বলা হয়। আনাস্তাসিয়া মনে করেন হোম অফিস তার বাবা-মাকে তার নিকট হতে পৃথক করতে চায়।

আনাস্তাসিয়া ড্রেভিনিটস্কা (২০) ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাসে তার মা স্বিতলানা ও বাবা ভলোডাইমিরের সাথে যোগ দিতে যুক্তরাজ্যে এসেছিলেন।

ড্রিভিনিটস্কা একজন স্পনসর অনুসন্ধান করেছিলেন যাতে তিনি স্কিমের অধীনে তার মা,বাবার সাথে যুক্তরাজ্যে যোগ দিতে পারেন। একজন ইউক্রেনীয় ব্যক্তি অর্থের বিনিময়ে তার কাগজাদি ঠিক করে দেয়ার কাজ নিয়েছিল। ড্রিভিনিটস্কা সেই কাগজপত্রের জন্য অর্থ প্রদান করেছিলেন যাতে তিনি যুক্তরাজ্যে ভ্রমণ করার অনুমতি পান। কিন্তু যখন তিনি যুক্তরাজ্যে পৌঁছেন তখন তিনি জানতে পারেন লোকটি তাকে যে কাগজপত্র তৈরি করে দিয়েছিল তা সব ভুয়া ছিল এবং তাকে ফাঁসানো হয়েছে।

হোম অফিস ড্রিভিনিটস্কার মাত্র ছয় মাসের অস্থায়ী ছুটি মঞ্জুর করে, যা ১৯ জুন শেষ হয়ে যাবে বলে তথ্যমতে জানা যায়। তিনি হোম অফিসের পক্ষ হতে ইতোমধ্যে ইউক্রেনে ফিরে যাওয়ার নির্দেশ সম্বলিত চিঠিও পেয়েছেন বলে দ্য গার্ডিয়ানকে জানান। যদিও যুক্তরাজ্যের আইনানুযায়ী শরণার্থীদের সক্রিয় যুদ্ধ অঞ্চলে জোর করে ফিরিয়ে দেওয়ার সরকারী নীতি নেই।

আনাস্তাসিয়া ড্রেভিনিটস্কা বলেন, ” আমি ইউক্রেনে ফিরে যেতে খুব ভয় পাচ্ছি, সেখানে ক্ষেপণাস্ত্র যে কোনও সময় উড়ে আসে। আমি যখন ইউক্রেনে অবস্থান করছিলাম তখন আমার মা-বাবা সবসময় চিন্তিত থাকতেন। আমি ফিরে গেলে আমার জীবনের কোনো নিরাপত্তা থাকবে না এবং আমার মা-বাবা চিন্তায় চিন্তায় সময় কাটাবেন।”

হোম অফিস তাদের চিঠিতে জানায়, ড্রিভিনিটস্কা ইউক্রেন স্কিমের জন্য উপযুক্ত নন। তার যুক্তরাজ্যে থাকার প্রয়োজনীয়তা কাগজপত্র দিয়ে প্রমাণিত হয় না। তিনি যুক্তরাজ্যে আসার আগে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করেননি।

যদিও ড্রিভিনিটস্কা বারংবার জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যে পৌঁছানোর জন্য কি কি কাগজপত্র লাগে সে ব্যাপারে তিনি ওয়াকিবহাল ছিলেন না। যার কারণে কাগজপত্রে ঘাটতি থাকতে পারে।

হোম অফিসের চিঠিতে আরো বলা হয়েছে ড্রিভিনিটস্কার হোম অফিসের দেয়া সিদ্ধান্তের উপর আপিল করার বা প্রশাসনিক পর্যালোচনার কোনও অধিকার নেই। তাতে আরো উল্লেখ করা হয়েছে যে তিনি ফিরে গিয়ে এই ইউক্রেন স্কিমের অধীনে একটি নতুন আবেদন করতে পারেন। তবে যদি যথাযথ কাগজপত্র প্রদর্শন না করতে পারেন বা তথ্য সরবরাহ করতে ব্যর্থ হন তবে আবেদনটি পূণরায় প্রত্যাখ্যান হতে পারে।

ওয়ার্ক রাইটস সেন্টারের ইমিগ্রেশন বিভাগের প্রধান লুক পাইপার বলেন, “ হোম অফিস ইউক্রেনের জনগণের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া উচিত। যুক্তরাজ্যের প্রতিশ্রুতি ছিল তারা ইউক্রেন ও ইউক্রেনীয়দের সাহায্য করবে এবং নিরাপত্তার জন্য যুক্তরাজ্যে শরনার্থী হিসাবে রাখবে। কিন্তু ড্রিভিনিটস্কার কেইসে দেখা যাচ্ছে বেসামরিক জনগোষ্ঠীকে বরং যুদ্ধক্ষেত্রে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে।”

ড্রিভিনিটস্কার কেইসের ব্যাপারে হোম অফিসের একজন মুখপাত্র বলেন, ” আমরা হোম অফিসের কোনো সিদ্ধান্তের ব্যাপারে পৃথকভাবে মন্তব্য করতে অপারগ।”

সূত্রঃ দ্য গার্ডিয়ান

এম.কে
১০ জুন ২০২৪

আরো পড়ুন

অবৈধ আশ্রয়প্রার্থী নিয়ে বিপাকে যুক্তরাজ্য

নিউজ ডেস্ক

যুক্তরাজ্যে নতুন করে বাড়িভাড়া বাড়ানোর পরিকল্পনা করছেন বাড়ির মালিকেরা

হোম অফিসের রেইডে ৪৪ জন ডেলিভারি ড্রাইভার আটক