5.1 C
London
March 4, 2024
TV3 BANGLA
Uncategorized

অস্ট্রেলিয়ায় লকডাউন থাকতে পারে ২০২২ পর্যন্ত

২০২২ সাল পর্যন্ত লকডাউন থাকতে পারে অস্ট্রেলিয়ায়। করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন না পাওয়া পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ান নাগরিকদের বিদেশ ভ্রমণও সীমাবদ্ধ থাকবে।

করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত মার্চ মাস থেকে বিদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করে অস্ট্রেলিয়া সরকার। এছাড়া অস্ট্রেলিয়ান নাগরিকদেরকেও সরকারের অনুমতি ছাড়া বিদেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

সরকার ভবিষ্যদ্বাণী করেছে, ২০২১ সালের শেষ না হওয়া পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার নাগরিকদের টিকা দেওয়া সম্ভব হবে না। অর্থাৎ এই বছরের শেষ পর্যন্ত ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা থাকবে এবং সামাজিক দূরত্বও মানতে হবে। সবাইকে টিকা না দেয়া পর্যন্ত এই ব্যবস্থা জারি থাকবে।

অস্ট্রেলিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী গ্রেগ হান্ট ও প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন সোমবার ( ৫ অক্টোবর) এক সংবাদ সম্মেলনে জানান যে, আগামী জানুয়ারিতে করোনা প্রতিষেধকের প্রথম ব্যাচ পেতে পারে অস্ট্রেলিয়া৷

জানা যায়, গত মার্চ মাস থেকে কেবল অস্ট্রেলিয়ান নাগরিক এবং স্থায়ী বাসিন্দাদের অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশের অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে তাদের নিজস্ব ব্যয়ে অবশ্যই দুই সপ্তাহ হোটেল কোয়ারানটাইনে থাকতে হবে।

এখন পর্যন্ত আড়াই লাখ মানুষ কাজ হারিয়েছেন এ দেশে ৷ ধারণা করা হচ্ছে লকডাউনে এই সংখ্যা আরো বাড়াতে পারে।

আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, অস্ট্রেলিয়ায় এ পর্যন্ত ২৬ হাজার ১৩৮ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। আর এতে মারা গেছেন ৭৩৭ জন।

৭ অক্টোবর ২০২০
এসএফ
তথ্য সূত্র:ডেইলি মেইল

আরো পড়ুন

অবৈধ অভিবাসন প্রক্রিয়ায় জড়িত সন্দেহে কর্মকর্তা বরখাস্ত

Spirit of Cricket with Ratan ll Episode 04 ll Mohammed Ashraful

সরকার ঘোষিত কর্মজীবিদের জন্য প্রণোদনা প্রস্তাব