4.6 C
London
April 17, 2024
TV3 BANGLA
যুক্তরাজ্য (UK)

নিরাপত্তা হুমকি: দেহরক্ষী পেলেন যুক্তরাজ্যের ৩ নারী এমপি

যুক্তরাজ্যে নিরাপত্তার জন্য তিন নারী সংসদ সদস্যদের দেহরক্ষী ও চালকসহ গাড়ি দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি দেশটির ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি ও বিরোধী লেবার পার্টির এমপিদের জীবনের ঝুঁকি সামনে আসায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা হালনাগাদ করা হয়।

সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে ওই তিন সংসদ সদস্যের নাম উল্লেখ না করে বলা হয়, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে তাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা ও চালকসহ গাড়ি দেওয়া হয়েছে। এক জ্যেষ্ঠ নিরাপত্তা কর্মী দ্য গার্ডিয়ানকে বলেন, ‘অনেক সংসদ সদস্যই নিরাপত্তার ঝুঁকিতে আতঙ্কিত।’

সংসদ সদস্যদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা ব্যবস্থা জোরদার করতে যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষামন্ত্রী টম টুগেনধাত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পুলিশ প্রধান ও সংসদীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম সানডে টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে এক নতুন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। রাজপরিবার ও জ্যেষ্ঠ রাজনীতিবিদদের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা রাজকীয় ও ভিআইপি নির্বাহী কমিটিকে (রাভেক) এমপিদের প্রতি হুমকি মূল্যায়নে সহায়তা করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাজ্য পার্লামেন্টের স্পিকার লিন্ডসে হয়েল সম্প্রতি উগ্র ডানপন্থী রাজনীতিক পক্ষ থেকে ক্রমবর্ধমান হুমকি সম্পর্কে সতর্ক করেন। গত বুধবার গাজায় এই মুহূর্তে যুদ্ধবিরতির দাবিতে স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টির (এসএনপি) বিতর্কের সময় লেবার পার্টিকে এই বিষয়ের ওপর ভোটাভুটির প্রস্তাব উত্থাপনে অনুমতি দেন স্পিকার। এটি ব্রিটিশ পার্লামেন্টে একটি নজিরবিহীন ঘটনা। এই পদক্ষেপও এমপিদের নিরাপত্তার জন্য হুমকির কারণ হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন স্পিকার।

স্পিকার হলে সংসদ সদস্যদের বলেন, ‘আমি এ সংসদের প্রত্যেক সদস্যকে রক্ষা করব। আমি কখনই এমন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে চাই না যেখানে কোনো বন্ধুকে খুঁজে পাওয়ার জন্য ফোন করার পর আমাকে শুনতে হয় যে তিনি সন্ত্রাসীর হাতে খুন হয়েছেন, তিনি যে দলেরই হোন না কেন। আমি এ সংসদের ওপর কোনো আক্রমণ চাই না।’

হয়েল আরও বলেন, ‘আমি যে বিষয়গুলো শুনেছি তার বিবরণ অত্যন্ত ভীতিকর। আমি দোষী, কারণ আমার (সহকর্মীদের) নিরাপদে রাখার দায়িত্ব আমার রয়েছে, আমি মানুষকে রক্ষা করার জন্য তা পালন করব। এই নিরাপত্তাই আমাকে ভুল সিদ্ধান্তের দিকে পরিচালিত করেছে।’

২০১৬ সালে পশ্চিম ইয়র্কশায়ারের বার্স্টলে নির্বাচনী এলাকার বৈঠকের পর উগ্র ডানপন্থী থমাস মায়ারের হাতে খুন হন লেবার পার্টির এমপি জো কক্স।

কনজারভেটিভ পার্টির এমপি স্যার ডেভিড অ্যামেসকে ২০২১ সালে এসেক্সের লে–অন–সিতে একটি নির্বাচনী এলাকায় ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়।

সূত্রঃ দ্য গার্ডিয়ান

এম.কে
২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

আরো পড়ুন

ক্রিসমাসের সময় ব্রিটেনের ‘টিয়ার-৪’ এলাকায় যা যা মানতে হবে

ব্রিটিশদের জন্য ১৭৫০ পাউন্ডের কোয়ারেন্টিন বিল! 

টুইটারের সবচেয়ে বড় অংশীদার এখন ইলন মাস্ক