8.3 C
London
February 26, 2024
TV3 BANGLA
যুক্তরাজ্য (UK)শীর্ষ খবর

ভাতিজিকে হত্যা করায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

২০ বছর বয়সী তরুণীকে বিয়েতে রাজি না হওয়ার কারণে হত্যা করে ময়লা ফেলার ডাস্টবিনে ড্যাম্প করেছিল তরুণীর আত্মীয় মোহাম্মদ তারোস খান। পঞ্চাশোর্ধ তারোস খান সুমাইয়া বেগমকে হত্যা করে কার্পেটের ভিতরে প্যাঁচিয়ে বর্জ্যভূমিতে ফেলে দিয়েছিল। এই হত্যার কারণ সুমাইয়া বেগম তার চাচাতো ভাইকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেছিলেন। সুমাইয়া বেগমকে তার বাড়িতেই হত্যা করা হয়।
লিডস বেকেট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর মরদেহটি নিখোঁজ হওয়ার ১১ দিন পরে ২০২২ সালের জুলাইয়ে ব্র্যাডফোর্ডের ফিটজ উইলিয়াম স্ট্রিটে পাওয়া গিয়েছিল।
ব্র্যাডফোর্ড ক্রাউন কোর্ট, খানকে সর্বনিম্ন ২৫ বছরের সাজা দিয়েছে। তার বিচার চলাকালীন, জুরিরা বলেছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সুমাইয়া তার মৃত্যুর সময় জানিয়েছিলেন তার বাবা ও চাচা তাকে চাচাতো ভাইকে বিয়ে করার জন্য প্রেসার দিয়ে যাচ্ছিলেন। খবরে জানা যায় এই বিয়েতে অসম্মতির কারণেই তাকে হত্যা করা হয়।
গত বছরের ২৫ শে জুন সুমাইয়া বেগমকে তার বাড়িতে আক্রমণ করার পরে, তারোস খানকে সিসিটিভিতে সুমাইয়া বেগমের দেহটি তার গাড়ি পর্যন্ত টেনে নিয়ে যাওয়া এবং এটি বর্জ্য জমিতে ফেলে দিতে দেখা গেছে।
জুরির কাছে প্রমাণ হিসেবে জমা ভিডিও ফুটেজটিতে দেখা যায় তারোস খান গাড়ি থেকে বেরিয়ে আসার আগে তার সাথে কার্পেটে মোড়ানো ভারী মানবদেহ সদৃশ্য কিছু ছিল।
ব্র্যাডফোর্ডের থর্নবারি রোডের তারোস খান, যিনি হত্যার বিষয়টি অস্বীকার করেছিলেন তিনি ভিডিও ফুটেজের প্রমাণ হতে আদালতের কাছে দোষী সাব্যস্ত হোন।
ময়না তদন্তের রিপোর্টে সুমাইয়া বেগমের পিঠে ধাতব স্পাইক পাওয়া গেছে যা তার ফুসফুসে প্রবেশ করেছিল।
বুধবার তারোস খানকে কারাগারে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়ে মিঃ জাস্টিস গারনহাম বলেছিলেন, “একজন নিরীহ যুবতী মহিলার উপর আপনার এই ভয়ঙ্কর আক্রমণটির উদ্দেশ্য চিহ্নিত করা সম্ভব নয়।
তবে আপনি পাকিস্তানে সুমাইয়া বেগমের কাজিনের সাথে তাকে জোর করে বিবাহ দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। যা সুমাইয়া বেগম সমর্থন করেননি বিধায় তাকে হত্যা করা হয়েছে।”
ওয়েস্ট ইয়র্কশায়ার পুলিশের ডিউটি অফিসার মার্ক বোয়েস বলেছেন, মিস বেগমকে “ভয়ংকর,নৃশংস আক্রমণে” হত্যা করা হয়েছিল।
মিঃ বোয়েস বলেন, “সোমাইয়া একজন উজ্জ্বল ভবিষ্যতের অধিকারী যুবতী ছিলেন যিনি গ্র‍্যাজুয়েশন ডিগ্রি অর্জনের জন্য পড়াশোনা করছিলেন, নিজেকে সমর্থন করার জন্য একটি খণ্ডকালীন চাকরি করেছিলেন এবং নিজের জীবন নিয়ে খুশি এবং সন্তুষ্ট ছিলেন।”
মিঃ বোয়েস বলেছেন, তারোস খান শুধু অপরাধই করেন নাই তিনি মানব জীবনের প্রতি সম্পূর্ণ অবহেলা ও অসম্মান দেখিয়েছেন। তার শাস্তি অন্যকে অপরাধ সংঘটনে বাঁধা দিবে।
এম.কে
১৫ মার্চ ২০২৩

আরো পড়ুন

যুক্তরাজ্য মৃদু মন্দার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে, ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের সুদহার অপরিবর্তিত

বেঁচে ফেরাদের বর্ণনায় অভিবাসন প্রত্যাশীদের নৌকাডুবি

প্রতারণা মামলা থেকে রেহাই পেলেন এমপি আপসানা