12.1 C
London
May 21, 2024
TV3 BANGLA
ইউরোপ

ভূমধ্যসাগরে আবারো নৌকাডুবি, ৭৪ অভিবাসন প্রত্যাশীর মৃত্যু

লিবিয়া উপকূলে অবৈধ অভিবাসীবাহী একটি নৌকা ডুবে কমপক্ষে ৭৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) লিবিয়ার খোমস উপকূলীয় এলাকায় ১২০ জন অভিবাসী নিয়ে একটি নৌকা ভূমধ্যসাগরে ডুবে যায়। সেখানে উদ্ধার অভিযান চালায় লিবিয়ার কোস্টগার্ড। ৪৭ জনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও মারা যান অন্তত ৭৪ জন। এ তথ্য নিশ্চিত করে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা- আইওএম।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা জানায়, গেল ১ অক্টোবর থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ৮টি নৌকাডুবির ঘটনা ঘটলো। নিহতদের অধিকাংশই আফ্রিকার বিভিন্ন দেশের নাগরিক বলে জানা গেছে।

লিবিয়ার আইওএম-এর প্রধান ফেডেরিকো সোডা জানান, বিপদজ্জনক ভূমধ্যসাগর হয়ে অবৈধ উপায়ে ইউরোপে যাওয়া ঠেকাতে উন্নত দেশগুলি ব্যর্থ। ফলে প্রতিনিয়ত জানমালের ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে। সমুদ্র পথে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ইউরোপে প্রবেশ বন্ধ না করা গেলে সামনে আরো প্রাণ ঝরবে।

এদিকে বেসরকারি উদ্ধারকারী সংস্থা ওপেন আর্মস জানায়, গত মঙ্গল (১০ নভেম্বর) এবং বুধবার (১১ নভেম্বর) পৃথক অভিযান চালিয়ে আড়াই শতাধিক অভিবাসন প্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার তথ্য মতে, চলতি বছরে অবৈধভাবে ইউরোপে প্রবেশের চেষ্টাকালে ভূমধ্যসাগরে ডুবে প্রায় ৯০০ মানুষ প্রাণ হারান। জীবনের স্বপ্ন পূরণ করতে গিয়ে বিপদজ্জনক পথে দালাল এবং সীমান্তরক্ষীদের হাতে অমানবিক নির্যাতনের শিকার হতে হয় তাদের। তবে বিভিন্ন সময় অভিযান চালিয়ে উদ্ধার করে ১১ হাজার অভিবাসন প্রত্যাশীকে লিবিয়ায় ফেরত পাঠানো হয়েছে।

অভিবাসন প্রত্যাশীদের অন্যতম লক্ষ্য থাকে ইতালি। প্রতিবছর বহু মানুষ এ দেশটিতে অবৈধ উপায়ে প্রবেশ করে। ইতালির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এ বছর ৩১ হাজার শরণার্থী দেশটিতে প্রবেশের চেষ্টা করে। যা, গত বছরের থেকে ১০ হাজার বেশি।

১৩ নভেম্বর ২০২০
এনএইচ

আরো পড়ুন

মহানবীর ব্যঙ্গচিত্র আঁকা কার্টুনিস্ট সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

অনলাইন ডেস্ক

মাঙ্কিপক্সের প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণযোগ্য: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

অনলাইন ডেস্ক

ফ্রান্সে বাংলাদেশি আশ্রয়প্রার্থিদের আবেদন শুনানি ছাড়াই বাতিল