24.1 C
London
July 24, 2024
TV3 BANGLA
ইউরোপ

চরম সংকটময় পরিস্থিতিতে ব্রিটিশ সরকার

বরিস জনসন এবং লি অ্যান্ডারসন

ব্রেক্সিট চূড়ান্ত করা এবং করোনা ভাইরাসের এই সংকটময় পরিস্থিতিতে মারাত্মক চাপের মুখে পরেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

এই কঠিন সময়ে শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) পদত্যাগ করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের প্রধান উপদেষ্টা ডোমিনিক কামিংস। ডোমিনিক কামিংসের আগে পদত্যাগ করেন বরিস জনসনের যোগাযোগ পরিচালক লি কেইন। যে ব্রেক্সিট প্রচার চালিয়ে বরিস জনসন ২০১৯ সালে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছিলেন সেই প্রচারের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ছিলেন লি কেইন ও ডোমিনিক কামিংস।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে ব্রেক্সিট-পরবর্তী বাণিজ্য চুক্তির বিষয়ে ঐকমত্যের শেষ সময় এখন। ঠিক এই সময়ে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় পড়েছেন বরিস জনসন। করেন্টাইনে দিন কাটাতে হচ্ছে তাকে। বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) তিনি টোরি দলের সংসদ সদস্য লি অ্যান্ডারসনের সঙ্গে প্রায় ৩৫ মিনিট মিটিং করেছেন৷ সে সময়ে দুজনের কারো মুখেই মাস্ক ছিল না৷ শনিবার (১৪ নভেম্বর) অ্যান্ডারসনের শরীরে কোভিড-১৯ ধরা পড়েছে৷

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে চূড়ান্ত আলোচনায় বোঝাপড়ার সম্ভাবনা বেড়ে যাচ্ছে বলে কিছু বিশেষজ্ঞ মনে করছেন৷ কিন্তু আলোচনা বিফল হলে শুল্কসহ নানা বাধা সৃষ্টি হতে পারে৷ এমনটা হলে ব্রেক্সিট ও করোনা মহামারির ফলে বিপর্যস্ত ব্রিটিশ অর্থনীতিকে আরও দুর্দিনের মুখ দেখতে হবে৷

এদিকে যুক্তরাজ্যে করোনা সংকট মারাত্মক আকার ধারণ করেছে৷ পুরো দেশে ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত লকডাউন দেয়া হয়েছে৷ পরিস্থিতি সামলাতে জনসন সরকারের ব্যর্থতার তীব্র সমালোচনা বেড়ে চলেছে৷ জনসনের প্রতি জনসমর্থনও পড়তির দিকে৷

সূত্র: সিএনএন
১৬ নভেম্বর ২০২০
এসএফ

আরো পড়ুন

করোনায় বাংলাদেশে ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিকদের জন্য ১০৩১ কোটি টাকার সহায়তা দেবে ইইউ

অনলাইন ডেস্ক

ইতালির ইতিহাসে প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রীর শপথগ্রহণ

ইইউ পরিবার থেকে দূরেই থাকছে সুইজারল্যান্ড